মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

উপজেলার ঐতিহ্য

ফতেজঙ্গপুরঃপ্রাচীন নাম শ্রীনগর। মুঘল সেনাপতি রাজমানসিংহ যখন বিক্রমপুর আক্রমণ করেন তাখন তার সহযোগী যোদ্ধাগণ এখানকার রাজাকেদার রায় কর্তৃক পরাস্ত হয়ে শ্রীনগরে আশ্রয় নিয়েছিলেন। মানসিংহ তাদেরকেউদ্ধারের জন্য তার সেনাবাহিণী প্রেরণ করেন। ফলে প্রচন্ড যুদ্ধ সংঘঠিত হয়।কেদার রায় এ যুদ্ধে আহত হয়ে মৃত্যমুখে পতিত হন। জয় চিহ্ন স্বরুপ মানসিংহশ্রীনগরের নাম পরিবর্তন করে ফতেজঙ্গপুর রাখেন। ইহা বিখ্যাত জ্যোতির্বিদ মদনমোহন বিদ্যাভূষণের জন্মস্থান। এখানে নাককাটা বাসুদেবের প্রস্থর মূর্তিআছে।

মগরঃপ্রখ্যাত কবি ও গীতিকার অতুল প্রসাদ সেনের জন্মস্থান।

রাজনগরঃবৈদ্য প্রধান স্থান। ফরিদপুরের ইতিহাসলেখক আনন্দ চন্দ্র রায়, ঢাকার ইতিহাস লেখক যতীন্দ্র নাথ রায় ও ঢাকারবিশিষ্ট উকিল রাজনীকান্ত গুপ্ত এদের জন্মস্থান। এখানকার অভয়া ও শিবলিঙ্গবিখ্যাত।

শ্রীপুরঃপূর্বেচাঁদরায় ও কেদার রায়ের বাসস্থান ছিল।

কেদারপুরঃকেদার রায় এখানে বাসস্থান তৈরী করতে চেয়েছিলেন। কিছু কাজ সমাপানান্তে তারমৃত্যু হওয়াতে উহ পরিত্যক্ত হয়। বাড়ির চতুষ্পার্শ্বে যে পরিখা খনন করতেছিলেন তার ভগ্নাবশেষ এখনও বিদ্যমান। ইহাকে কেদার রায়ের বাড়ির বেড় বলে।

উপসীঃব্রাক্ষণ জমিদার তারা প্রসন্নভট্রাচার্যের বাসস্থান। এখানকার উচ্চ বিদ্যালয়টি বেশ প্রাচীন ও নামকরা।

ডিঙ্গামানিকঃগোলক চন্দ্র সার্বভৌম ও শ্রীযুক্ত কালিকিশোর স্মৃতি রত্ন মহাশয়ের বাসস্থান। এখানে রামসাধুর আশ্রম বিখ্যাত ।

কার্তিকপুরঃপূর্বে একটি পরগনার নাম ছিল হোগলা। এনামে যে স্থান পরিচিত তার প্রকৃত নাম হোগলী। প্রখ্যাত মুসলিম জমিদার চৌধুরীপরিবারের বাসস্থান। এক কালীন পূর্ব পাকিস্তান মন্ত্রী পরিষদের সদস্যআলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন আহমদ চৌধুরীর জন্মস্থান। জবু সম্ভ্রান্ত ব্রাক্ষণ ওবৈদ্যের বাসস্থান। বিশিষ্ট জমিদার মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী, রায় বাহদুররায়মোহন সেন ও শ্রীমন্ত কুমার দাস গুপ্ত এদের জন্মস্থান। শিল্পপতি ওশিক্ষানুরাগী জয়নুল হক শিকদার ও প্রাক্তন এমপি এম.এ রেজা এখানে জন্মগ্রহণকরেন।

চরআত্রাঃবিখ্যাত স্থান। এখানাকার অনেক অঞ্চলই আজপ্রমত্তা পদ্মার গর্ভে বিলীন। ব্রিটিশ সরকার কর্তৃক খান সাহেব উপাধিতেভূিষত এবং পাকিস্তানের প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ের জাতীয় পরিষদ সদস্য খান সাহেবআবদুল আজিজ মুনশি এখানে জন্মগ্রহণ করেন। বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ড.এ কে এম ফজলুলহকের জন্মস্থান ও এখানেই।

নওপাড়াঃবাংলাদেশ সরকারের বাণিজ্য সচিব জনাবফিরোজ আহমেদ এবং জর্দানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জনাব গোলামমোহাম্মদের জন্মস্থান। পদ্মা নদীতে বিলীন হওয়া এবং পরে আবার জেগে ওঠা একটিবর্ধিষ্ণু জনপদ।

পাইকপাড়াঃবিশিষ্ট শিক্ষাবিদ আবুল ফারাহ মুহাম্মদআবদুল হক ফরিদী এবং তাঁর যোগ্য সন্তান বাংলাদেশ সরকারের সাবেক কেবিনেট সচিবজনাব আতাউল ( জেলার একমাত্র সিএসপি) এর জন্মস্থান।

মোক্তারের চরঃবিশিষ্ট রাজনীতিক ও বায়ান্নর ভাষাআন্দোলনের বিশিষ্ট ছাত্রনেতা ও সাবেক পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের এম,এল এ, ডাঃগোলাম মাওলার জন্মস্থান।

সুরেশ্বরঃদেশখ্যাত স্থান। এ স্থানের নামে সবজিডাটা আছে। প্রাচীন নদীবন্দর। এখানকার বিখ্যাত পীর জান শরীফ এ মাজারে প্রতিবছর শীতকালে ওরস হয়।


Share with :

Facebook Twitter